Infinix hot 10 vs Xiaomi Poco M3 Bangla

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আমরা ১৫ হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে সবচেয়ে সেরা দুটি ফোন দেখব।

আসলে আমরা যারা মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান আমাদের ২০, ৩০, ৪০ হাজার টাকা দামের ফোন কেনার সামর্থ নেই। আবার কমদামে ভালো কোয়ালিটির ফোন পাওয়া যায় না। সবাই চায় কমদামে ভালো মানের প্রসেসর, ক্যামেরা, র‌্যাম।

কিন্তু আমাদের দেশের ভ্যাটের যে অবস্থা তাতে কমদামে ভালো ফোন পাওয়া স্বপ্নের মত। হবেই না কেন যে দেশে আমদানির উপর ৫৪% ভ্যাট বসাতে পারে সেই দেশে এমন হওয়াটা স্বাভাবিক।

ভারতে যে ফোন ১০ হাজারে পাওয়া যায় বাংলাদেশে সেটা আসলে ১৫ হাজার হয়ে যায়, আবার ভারতের মুদ্রার মান কিন্তু বাংলাদেশের সমান। একমাত্র ভ্যাটের কারণেই এত দাম হয়ে যায়। তারপরও সকলেরই চেষ্টা থাকে কমদামে ভালো কোয়ালিটির ফোন পাওয়ার জন্য।

অনেকে নেট ঘাটাঘাটি করে খুজে বের করতে পারেন ভালো ফোনটি আবার অনেকেই তা পারেন না। তো আমি আপনাদের সহযোগীতার জন্য আজকে এ পোস্টটি নিয়ে আসলাম। এখানে দেখানো দুটি ফোনই চমৎকার।

গেমিং, ক্যামেরা , ব্যাটারি সবকিছুই ভালো এদের আপনি নিশ্চিন্তে নিতে পারেন।

আমরা দেখব এ দুটির মধ্যে কেকান ফোনটি সবচেয়ে সেরা। অনেকে এ দুটি ফোন নিয়ে কনফিউশনে পড়ে যায় যে কোনটি নিবে। তাদের জন্যই আজকের এ পোস্ট। তো চলুন শুরু করা যাক।

Display:

প্রথমেই বলব ডিসপ্লে নিয়ে। একেত্রে Xioami Poco M3 অনেক আগানো।

Xioami Poco M3 এরা ব্যবহার করেছে আইপিএস এলসিডি, 400 nits (typ)। যার রেজুলেশন হচ্ছে 1080 x 2340 পিক্সেল। ডিসপ্লের দৈঘ্য হচ্ছে 6.53 ইঞ্চি। স্রীন প্রোটেকটর হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে কোরনিং গোরিলা গ্লাস-3।

Infinix hot 10 এর ডিসপ্লেও খারাপ না। এটিও আইপিএস ডিসপ্লে। এর রেজুলেশন 720 x 1620 পিক্সেল। তবে মজার ব্যাপার কি জানেন এটাতেও 2K ভিডিও প্লে হয়। ডিসপ্লের দৈঘ্য হচ্ছে 6.78 ইঞ্চি।

ফোনটা অনেকটাই বড় আর লম্বা লাগে হাতে নিলে।

দুটি ফোনই ডিসপ্লেতে ভালো তবে Infinix hot 10 এর ডিসপ্লে আরো ভালো করা যেত। কারণ এখন সবাই হাইকোয়ালিটি ভিডিও দেখে।

চিপসেট:

Xioami Poco M3 ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন 662 (11nm) প্রসেসর।

আর Infinix hot 10 এ ব্যবহার করা হয়েছে Mediatek helio G70 (12nm)।

দুটি ফোনেই চিপসেট ভালো মানের ব্যবহার করা হয়েছে। দুটি দিয়েই ভালো গেমিং করা যাবে। তবে লং টাইম পারফরমেন্সে মিডিয়াটেক প্রসেসর  তেমন ভালো না। আবার স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর লং টাইম ধরে খুব ভালো ব্যবহার করা যায়।

সিপিউ: 

Xioami Poco M3 তে থাকছে অক্টাকোর (4×2.0 Ghz kyro 260 Gold এবং 4×1.8 Ghz  kyro 260 silver)।

Infinix hot 10 এ থাকছে অক্টাকোর (2 x2.0 Ghz cortex-A75 এবং 6.17  Ghz Cortez- A55)

GPU:

Poco M3 তে থাকছে Adreno 610.

Hot 10 এ থাকছে Mali G-52

ক্যামেরা:

Poco M3 তে থাকছে 48 MP, f/1.8 (wide)

                                  2   MP (macro)

                                  2   MP (depth)

Hot 10 এ থাকছে 48 MP, f/1.8 (wide) PDAF

                                  2   MP (macro)

                                  2   MP (depth)

                             Low Light Sensor

দুটি ফোনের ক্যামেরাই অনেক ভালো। Hot 10 লো লাইটে অনেক ভালো ছবি উঠে, কারণ এতে লো লাইট সেনসর ব্যবহার করা হয়েছে।

Hot 10 6/64 ভাসর্নে ক্যামেরা কিন্তু ডোয়াল ক্যামেরা।

Poco M3 তে Gcam ব্যবহার করতে পারবেন।

সেলফি ক্যামেরা দুটোরই ভালো।

ব্যাটারি:

আমার মতে যেকোন ফোনের ব্যাটারি অনেক বড় গেম চেন্জার হিসেবে কাজ করে।

একেত্রে Poco M3 আগানো। এতে থাকছে 6000 mAh এর লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।

Hot 10 এ থাকছে 5200 mAh এর লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি।

র‌্যাম:

দুটির সেম ভ্যারিয়েশন থাকছে। 6/64 এবং 6/128 অফিসিয়াল।

স্পিকার:

Poco M3 তে থাকছে ডোয়াল স্পিকার।

Hot 10 এর স্পিকারও খারাপ না।

দাম:

এবার আসি আসল জায়গায়। জিনিস যেমনই হোক না কেন দামে না মিললে ত কিনতে পারব না।

Poco M3 এর দাম 4/64= 14,499 টাকা

                               4/128= 15,699 টাকা

Hot 10 এর দাম   4/64 = 10,490 টাকা

                             4/128= 12990 টাকা

এখন কথা হলো কোনটা বেস্ট। এটা ডিপেন্ড করবে আপনি কি কাজে ব্যবহার করবেন। দুটি ফোনই সব ধরনের কাজে ব্যবহার করতে পারবেন কোন সমস্যা নেই। তবে আপনি যদি ভালো ডিসপ্লে, ভালো ক্যামেরা, ইউনিক স্টাইল, ভালো ব্যাটারি  ব্যাকাপ চান তবে Poco M3 নিতে পারেন।

আর আপনি যদি বলেন আপনার বাজেট একটু কম ডিসপ্লেও এত ভালো মানের দরকার নাই তাহলে Hot 10 নিতে পারেন।

এখন আপনার ইচ্ছা। আপনিই বিবেচনা করুন।