ভেকু মেশিনের দাম কত এবংকেমন ব্যবসা কারা যায়?

ভেকু মেশিন- আমরা প্রত্যেকেই এ মেশিনটির সাথে খুবই পরিচিত। বিশেষ করে আমরা যখন ছোট ছিলাম এ মেশিন ছিল আমাদের স্বপ্নের মেশিন।
আজকে আমরা যা যা জানবঃ

আপনার মনে কি কখনো প্রশ্ন জেগেছে ভেকু মেশিনের দাম কত?

ভেকু মেশিন কোথায় পাওয়া যায়?

ভেকু মেশিন দিয়ে কত টাকা ইনকাম হয়?

এসকল প্রশ্নগুলোর উত্তর খুজব আমরা এ পোষ্টে।
সাধারণ আলোচনাঃ
প্রযুক্তির উন্নয়নের সাথে সাথে তৈরী হয়েছে নানা রকম প্রয়োজনীয় মেশিন। এসব মেশিন মানুষের জীবনকে করে দিয়েছে সহজ, বাচিয়েছে সময়।
ভেকু মেশিনের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে তেমন নতুন করে কিছু বলার নেই। কারণ আমরা সকলেই জানি এ মেশিনটি কত গুরুত্বপূর্ণ একটি মেশিন। এ মেশিন দিয়েই বড় বড় পুকুর কাটা হচ্ছে, নদী খনন করা হচ্ছে, ইটভাটায় কাজে লাগছে, বালু কাটা হচ্ছে, রাস্তা তৈরী করা হচ্ছে এছাড়াও আরো অজস্র কাজে লাগছে মেশিনটি।
যাই হোক আসল কথায় আসি।
ভেকু মেশিন কত প্রকারঃ
ভেকু মেশিন মূলত তিন প্রকার।
(1) 3 পয়েন্ট (2) 5 পয়েন্ট
(3) 7 পয়েন্ট
সত্যি বলতে কি বাংলাদেশে এ তিন প্রকারই পাওয়া। বাইরের দেশে আরো কিছ ক্যাটাগরি থাকতে পারে।
এগুলো কোনটি কোন কাজে ব্যবহার করা হয়?

3 পয়েন্ট মেশিনঃ সবচেয়ে কমন ভেকু মেশিন। পুকুর খনন করা, রাস্তা বানানো, ইট ভাটার কাজে এটা ব্যবহার করা হয়। সাধারন কাজের জন্য এটাই যথেষ্ট।

5 পয়েন্ট মেশিনঃ এটিও 3 পয়েন্টের মতই, এর থেকে আর একটু ভারী কাজে ব্যবহার করা হয়।

7 পয়েন্ট মেশিনঃ এটি নদী খনন করা, পাহাড় কাটা, দালান ভাঙ্গা ইত্যাদি কাজে ব্যবহার করা হয়।

দাম বলার আগে জেনে নেওয়া দরকার এ মেশিনটি পুরাতন কেনা উচিত নাকি নতুন কেনা উচিত।
এ গাড়ি নতুন কিনবেন নাকি পুরাতন কিনবেন?
এ পশ্নের উত্তর দেওটা একটু কঠিন। মানে একটু চিন্তা ভাবনা করে বলতে হবে।
আসলে বাংলাদেশের অনেক কোম্পানি ভেকু মেশিন বিক্রি করে। কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্য এগুলো ১ বছর যেতে না যেতেই ভাঙ্গারিতে পরিনত হয়ে। মানে প্রতিদিন কোননা কোন জিনিস নষ্ট হবেই। যার ফলে সময় ও টাকা দুটোরই অপচয় হয়।
এখন তাহলে উপায় কী?
পথ আছে আরেকটা। বাংলাদেশের যেসব ভেকু দেখতেছেন তার 90-95% ই হলো রিকন্ডিশন মেশিন, বিদেশ থেকে আমদানি করা।
অনেকের আবার রিকন্ডিশন শব্দ বুঝতে সমস্যা হতে পারে।
বিদেশিরা বিভিন্ন প্রজেক্টে বা কারখানায় বা বড় কোন বিণ্ডিং এ কাজ করার পর, মেশিনগুলো যখন নানারকম সমস্যা দেখা দেয় তখন তারা ওইগুলো আর ঠিক না করে বিক্রি করে দেয়। আর বাংলাদেশি বিভিন্ন এক্সপোর্টার আছে যারা টেন্ডার থেকে ওই মেশিনগুলো কমদামে কিনে সমুদ্রপথে দেশে নিয়ে আসে। সমস্যাগুলো এরা আবার ঠিক করে নেয়।
এখন তাহলে রিকন্ডিশন মেশিন কোথায় পাবেন?
One and only জায়গা রিকন্ডিশন মাল কেনার জন্য সেটা হলো চট্রগ্রাম। চট্রগ্রামের সিটি গেট, বড়ইতলী, বরদার হাট। এখানে আপনাকে কয়েকটা উপদেশ দেই। সিটি গেট, বড়ই তলা গেলেই দেখতে পাবেন রাস্তার পাশে সারি করে দিয়েছে।

  1. ভেকু মেশিন সম্পর্কে অভিঙ্গতা না থাকলে কিনতে যাবেন না। আপনার যদি ভেকু মেশিন সম্পর্কে খুটিনাটি ধারনা না থাকে তাহলে ভুলেও একা মেশিন কিনতে যাবেন না। কারণ এখানে মানুষ ঠকানোর বড় ধরনের খেলা চলে।
  2. আজকে গিয়ে আজকেই মেশিন কিনবেন না যেন। কমপক্ষে ৭ দিন সময় নিয়ে ঘুরে দেখবেন তারপর মেশিন কিনবেন।
  3. দামাদামি ভালোমত কইরেন। দামাদামি না করলে ঠকবেন।
  4. আমদানি করা কাগজপত্র বুঝে নিন।
    আবারো বলছি ভাই অভিঙ্গতা না থাকলে কিনতে যাবেন না।
    তাহলে এবার জেনে নেওয়া যাক মেশিনগুলোর দাম কত?
    আসলে এ মেশিনের নিদিষ্ট করা কোন দাম নেই। পুরাতন মেশিন ত তাই। মেশিন অনুযায়ী দাম , যার কাছে যা রাখতে পারে।
  5. 3 পয়েন্ট মেশিনের দাম সাধারনত ১৪-২৪ লাখ টাকা।
  6. 5 পয়েন্ট মেশিনের দাম সাধারণত ১৮-৩০ লাখ টাকা।
  7. 7 পয়েন্ট মেশিনের দাম সাধারণত ৩৫-৪০ লাখ টাকা।
    চলুন দেখে নেই বিশ্বসেরা ৫ টি কোম্পানি যারা ভেকু তৈরী করে।
  8. কোরেলকুঃ ১৯৩০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় কোম্পানিটি। এটি জাপানে অবস্থিত।
  9. ক্যাটারপিলারঃ এ কোম্পানি ছাড়া নাকি ভেকুর কথা চিন্তাও করা যায় না।
  10. সোমিতোমো
  11. হিত্তন্দাই
  12. আনমার
    এখানে একটি চমৎকার তথ্য দিয়ে রাখি।
    পৃথিবীর সবথেকে বড় ভেকু মেশিনের নাম Bucybys RH400 এটি তৈরী করেছিল পৃথিবী বিখ্যাত কোম্পানি ক্যাটারপিলার ১৯৯৭ সালে।
    এবার লাভের অংক নিয়ে কথা বলিঃ
    প্রথমেই বলে রাখি এলাকাভেদে কাজের ধরন অনুযায়ী ভাড়া বিভিন্ন হয়ে থাকে।
    আপনি ভেকু কিনে আপনার নিজের কাজও করতে পারেন আবার ভাড়াও দিতে পারেন।
    ভেকু ভাড়ায় নিয়ে কাজ করে এমন মানুষের অভাব নেই। আপনি চাইলে ভেকু ভাড়া দিয়ে মাসে মাসে বসে বসে টাকা কামাতে পারেন। একটি ইন্টারেস্টিং বিষয় জেনে রাখুনঃ ভেকুর ১ মাস= ২৪০ ঘন্টা। ভেকু মেশিনের ১ মাস = ৩০ দিন না, ২৪০ ঘন্টা চালানো হয়ে গেলেই ১ মাস হয়ে যাবে।
    আমার এলাকায় বর্তমানে 3 পয়েন্ট মেশিনের ভাড়া ৭০০ টাকা ঘন্টা, ৫ পয়েন্ট মেশিনের ভাড়া ১২০০ টাকা ঘন্টা।
    ভাড়া দিলে আপনার কোন খরচ নাই। তেলও যে ব্যক্তি ভাড়া নিবে তাকেই দিতে হবে। আপনি শুধু বসে বসে টাকা গুনবেন।
    তাহলে আপনার ১ মাসে লাভ দাড়ালোঃ
    3 পয়েন্ট মেশিনঃ 700 x 240= 1,68,000 টাকা।
    5 পয়েন্ট মেশিনঃ 1200 x 240= 2,88,000 টাকা।
    আপনাকে কি কোন খরচ করতে হবে?
    ভাই এগুলো ত যন্ত্রপাতি। সব যন্ত্রেরই টুকিটাকি সমস্যা দেখা দেয়। এটার ক্ষেত্রেই একই। তবে প্রথম কয়েকবছর বড় কোন সমস্যা হওয়ার কথা না।

পরিশেষে কিছু কথা।
ভাইয়া ব্যবসাটা আপনার নিজের। হিসাব চিন্তা ভাবনা আপনাকেই করতে হবে। আমরা শুধু একটু আইডিয়া দিতে দিলাম।
সর্বপরি যেকোন সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ভেবেচিন্তে নিবেন। যারা এ মাঠে দীর্ঘদিন ধরে আছে তাদের কাছ পরামর্শ করে নিবেন।
আশা কি এ পোষ্টের মাধ্যমে কিছুটা হলেও ধারনা দিতে পেরেছি আপনাদের।
এরকম আরো পোষ্ট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত চোখ রাখুন। ধন্যবাদ।
ভালো থাকবেন।